বিশ্বের সেরা ৫ ধনী কে? তাদের বর্তমান মোট সম্পত্তি কতটুকু? সংক্ষিপ্ত ইতিহাস জানুন

পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিদের নিয়ে সাধারণ মানুষের আগ্রহের শেষ নেই। প্রতিবছর নতুন বছরে বিশ্বের সেরা ধনী ব্যক্তিদের তালিকায় গত কয়েক ধরে একটু পরিবর্তন দেখা যাচ্ছে। বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিদের তালিকা বছরের পর বছর পরিবর্তিত হতে পারে, তাদের সর্বশেষ নেট মূল্য এবং আর্থিক কর্মক্ষমতার উপর নির্ভর করে। সাধারণ মানুষের আগ্রহের উপর নির্ভর করে বিভিন্ন ওয়েবসাইট বছর বছর প্রকাশ করে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যাক্তির তালিকা।

Mar 7, 2024 - 10:00
Mar 7, 2024 - 05:06
 0  24
বিশ্বের সেরা ৫ ধনী কে? তাদের বর্তমান মোট সম্পত্তি কতটুকু? সংক্ষিপ্ত ইতিহাস জানুন
বিশ্বের সেরা ৫ ধনী কে? তাদের বর্তমান মোট সম্পত্তি কতটুকু? সংক্ষিপ্ত ইতিহাস জানুন

৩০ শে আগস্ট, ২০২২ এর রিয়েল - টাইম ব্লুমবার্গ বিলিয়নেয়ার ইনডেক্স এবং তাদের প্রত্যেকের সম্পর্কে কিছু আকর্ষণীয় তথ্যের উপর নির্ভর করে পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিদের তালিকা করা হয়েছে।


আপনি জানেন কি? পৃথিবীর ধনী ১% মানুষের যত সম্পদ আছে তা পৃথিবীর বাকি ৯৯% মানুষের মোট সম্পদের চাইতেও বেশী। সাধারণ মানুষের মাঝে সেই ১ ভাগ মানুষ-ই ভাবনার বিষয়। সেই ভাবনার ভিত্তিতেই বিভিন্ন ওয়েবসাইট বছর বছর প্রকাশ করে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তির তালিকা। এবার তাহলে জেনে আসি পাঁচ জন ধনকুব সম্পর্কে।


১. ইলন মাস্ক - $২৫১ বিলিয়ন ডলার

১৯৭১ সালে ২৮ জুন দক্ষিণ আফ্রিকায় জন্ম গ্রহণ করেন। বর্তমানে তার তিনটি দেশের নাগরিকত্ব আছে সেসব দেশগুলো হলো দক্ষিণ আফ্রিকা, কানাডা এবং আমেরিকা। এলন মাস্ক পেন্সিলভেনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেছেন।


তিনি অর্থনীতি ও পদার্থবিজ্ঞানে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেছেন।এলন মাস্ক  বৈদ্যুতিক গাড়ি  টেসলার নির্মাণের কাজ করছেন এবং মহাকাশে, রকেট প্রযোজনা স্পেসএক্স-এর মাধ্যমে পৃথিবীতে উভয় পরিবহনে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনতে কাজ করে চলেছেন।


ইলন মাস্কের বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাতা কোম্পানি টেসলার মূল্য এখন প্রায় $৮০০ বিলিয়ন, বর্তমানে তার মোট মূল্য $২৫১ বিলিয়ন। মাস্কের রকেট কোম্পানি, স্পেসএক্সের মূল্য বর্তমানে  প্রায় $১০০ বিলিয়ন। টেসলা ২০২১ সালের অক্টোবরে $৮০০ বিলিয়ন ডলারের বাজার মূলধন সহ পৃথিবীর  সবচেয়ে মূল্যবান অটোমেকার হয়ে উঠেছেন।


বিশ্বের অদ্বিতীয় ধনী হিসাবে পরিচিতি পেয়েছেন এলন মাস্ক। তার পরিচয় আমরা অন্যভাবে দিতে গেলে বলতে হবে তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার একজন প্রকৌশলী ও প্রযুক্তি উদ্যোক্তা। বিশ্ববিখ্যাত টেসলা মোটর গাড়ি প্রস্ততকারক প্রতিষ্ঠানটির সহ উদ্যোক্তা, প্রধান নির্বাহী ও পণ্য পরিকল্পনাকারী হিসাবে তিনি সর্বাধিক পরিচিত।


আজকের এই বিশ্বে বিশ্ববিখ্যাত পে-পাল, স্পেস এক্স, টেসলা এলন মাস্কের অবদান। আপনি যখন এই পোস্ট টি পড়া শুরু করেছিলেন তখনই আপনার মাথায় যে, প্রশ্নটি ঘুরপাক খাচ্ছিল তা হচ্ছে বর্তমানে ২০২২ সালে পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি কে? আপনার উত্তর হচ্ছে ইলন মাস্ক।


ইলন মাস্কের জীবন সম্পর্কে জানতে এই আর্টিকেলটি পড়ুন। এই দারুন প্রতিভাবান মানুষটি বর্তমানে রয়েছেন বিশ্বের সেরা ধনীদের তালিকার ১ নাম্বারে।
তাঁর সম্পদের পরিমাণ $২৫১ বিলিয়ন ডলার। তিনি বসবাস করেন বিশ্বের সবচেয়ে পরাশক্তির দেশ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে।


ইলন মাস্কের আয়ের উৎসের সিংহ আসে প্রযুক্তি খাত থেকে। বাংলাদেশের প্রেরণ করা বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ও স্পেসএক্সের মাধ্যমে মহাকাশে পাঠানো হয়।
সম্প্রতি ২০২২ সালের এপ্রিল মাসে তিনি জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার কিনে নেন মাত্র $৪৪ বিলিয়ন ডলারের বিনিময়ে।


চমৎকার আশাবাদী এই উদ্যোগক্তা মঙ্গল গ্রহে মানুষের বসতি নির্মানের চেষ্টায় আছেন। তিনি বলেন তাঁর জীবনে তিনি যদি পৃথিবীর বাইরে মানব বসতি দেখে যেতে না পারেন তবে তা তাঁর জীবনের বড় একটা অপূর্ণতা হয়ে থেকে যাবে।


২. জেফ বেজোস - $১৫৩ বিলিয়ন ডলার

১৯৬৪ সালের ১২ জানুয়ারি নিউ মেক্সিকো, যুক্তরাষ্ট্রে জন্ম গ্রহণ করেন জেফ বেজোস।তার  পুরো নাম জেফরি প্রেস্টন জেফ বেজোস। বিশ্বের ২য় ধনী জেফ বেজোস,আমেরিকার সিএটেল এর বাসিন্দা বিশ্বের সবচেয়ে বড় ই-কমার্স ওয়েবসাইট অ্যামাজনের উদ্যোক্তা ও সিইও জেফ বেজোস কিছুদিন আগেও ছিলেন পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি


তার অন্য পরিচয় তিনি মার্কিন ইন্টারনেট উদ্যোক্তা ও বিনিয়োগকারী।অন্য পরিচয় অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা তারই  নেতৃত্বে অ্যামাজন ডট কম প্রতিষ্ঠিত হয়।এবং সিইও জেফ বেজোসের বর্তমান  সম্পদ $১৫৩ বিলিয়ন এবং তিনি আজ বিশ্বের ২য় ধনী ব্যক্তি হিসাবে স্থান পেয়েছেন।


২০১৯ সালে তার বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটার পরে অ্যামাজনে তার এক চতুর্থাংশ শেয়ার হস্তান্তর করার পরেও তার অবস্থান একই রয়ে গেছে। বেজোস ১৯৯৪ সালে সিয়াটলে তার গ্যারেজ থেকে বেহেমথ অ্যামাজন প্রতিষ্ঠা করেন।


ই-কমার্স জায়ান্ট এই করোনভাইরাস মহামারীর সুবিধাগুলি কাটিয়েছে, আরও বেশি লোক অনলাইনে কেনাকাটা করছে।এখন অনলাইনে কেনাবেচার বৈশ্বিক প্রতিষ্ঠান। জেফ এমাজন শুরু করেন তার বেডরুমে। অ্যামাজন প্রথমে একটা অনলাইন ভিত্তিক বই বিক্রির দোকান ছিল। আজকে সেখান থেকেই জেফ বিশ্বের ২য় ধনকুবে পরিনত হয়েছেন।


৩. গৌতম আদানি এবং পরিবার - $১৩৭ বিলিয়ন ডলার

গৌতম আদানি ১৯৬২ সালে ২৪ জুন ভারতের  আহমেদবাদে জন্ম গ্রহণ করেন। গৌতম আদানির  ৭ জন ভাইবোন রয়েছে এবং তাঁর বাবা-মা গুজরাতের উত্তরের অংশ থরাদ শহর থেকে আহমেদাবাদে এসেছিলেন। তাঁর বাবা একজন বস্ত্র ব্যবসায়ী ছিলেন।


তার বর্তমান পরিচয় একজন ভারতীয় শিল্পপতি, যিনি আদানি গোষ্ঠীর চেয়ারম্যান ও প্রতিষ্ঠাতা। বন্দর উন্নয়ন ও পরিচালনাকারী বহুজাতিক গোষ্ঠির সাথে সংযুক্ত রয়েছেন তিনি। গৌতম আদানি  আদানি ফাউন্ডেশনের সভাপতি।


আদানি গ্রুপের প্রবর্তক, গৌতম আদানি তার বহুমিলিয়ন ব্যবসায়িক সম্পদকে বিভিন্ন ভাগে বিভক্ত করেছেন তারমধ্যে শক্তি, লজিস্টিক, কৃষি, মহাকাশ ইত্যাদি। আদানি গোষ্ঠী হল একটি বহুজাতিক সংস্থা যা ভারতে বন্দর কার্যক্রম এবং উন্নয়ন নিয়ে কাজ করে, অন্যদিকে আদানিকে এশিয়ার সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি হিসাবে গড়ে তোলে।


৪. বার্নার্ড আর্নল্ট এবং পরিবার-$১৩৬ বিলিয়ন ডলার

একজন ফরাসি ব্যবসায়ী, বিনিয়োগকারী এবং শিল্প সংগ্রাহক হলো তার বড় পরিচয়। এছাড়া  LVMH সহ-প্রতিষ্ঠাতা, চেয়ারম্যান এবং প্রধান নির্বাহী, বিশ্বের বৃহত্তম বিলাস দ্রব্য কোম্পানি। বার্নার্ড আর্নল্ট আজ বিশ্বের ৪র্থ ধনী ব্যক্তি।


লুই ভিটন এবং সেফোরা সহ ৭০টিরও বেশি ব্র্যান্ডের সাম্রাজ্য জুড়ে তার ব্যবসার ফলে তার মোট মূল্য $১৩৬ বিলিয়ন। ফরাসি ব্যবসায়ী ধনী ব্যক্তি বার্নার্ড আরনাল্ট গত বছর ডিসেম্বরে $১০০ বিলিয়ন ডলার সম্পদ অর্জন করেছিলেন এবং পৃথিবীর ৩য় ধনী হিসাবে পরিচিত এবং ফ্যাশন শিল্পে ধনীব্যক্তিদের মধ্যে একজন বার্নাড আর্নল্ট।


এছাড়াও ফ্রান্সের বৃহত্তম সুপার মার্কেটের ১০% তার মালিকানাধীন। বর্তমানে তার সম্পদের পরিমাণ $১৩৬ বিলিয়ন ডলার। তিনি পিকাসো, হেনরি মুরের মতো বিখ্যাত সব শিল্পীর চিত্র সংগ্রহ করেছেন।


প্রতিবছর তিনি আন্তর্জাতিক
ইয়ং ফ্যাশন ডিজাইন এর আয়োজন করেন। বার্নাড আর্নল্টকে ওমেনস অয়ার এর মতে বলা হয়, পপ অফ ফ্যাশন। তাঁর আয়ের বিভিন্ন উৎস রহেছে এর মাঝে সিংহ ভাগ আসে কসমেটিক্স এবং ফ্যাশন নির্ভর ব্যাবসা থেকে।


তিনি তার জীবনের প্রথমে একজন সিভিল ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন। এরপর নিজের পরিবারের ব্যবসায় ডিরেক্টর পদে অংশগ্রহন করে আজকে বর্তমান বিশ্বের ধনকুব হিসাবে আত্মপ্রকাশ করছেন।


৫. বিল গেটস - $১১৭ বিলিয়ন ডলার

১৯৫৫ সালে ২৮ অক্টোবর আমেরিকার রাজধানী  ওয়াশিংটনের সিয়াটলে জন্ম গ্রহণ করেন।তার পুরো নাম উইলিয়াম হেনরি গেটস। আমেরিকার গেটস একজন আমেরিকান ব্যবসায়ী, সফটওয়্যার ডেভলপার, বিনিয়োগকারী, লেখক এবং সমাজসেবী।


তিনি তার শৈশব বন্ধু পল অ্যালেনের সাথে মাইক্রোসফট প্রতিষ্ঠাতা করেছিলেন। বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের সহ-প্রতিষ্ঠাতা। বর্তমানে  বিল গেটসের মোট সম্পদ $১১৭ বিলিয়ন ডলার বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন পৃথিবীর বৃহত্তম বেসরকারি দাতব্য ফাউন্ডেশন।


বিল গেটস ছিলেন হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ঝড়ে পড়া ছাত্র। তার বিশ্ববিদ্যালয়ের বেশির ভাগ সময় কাটতো কম্পিউটার ল্যাবে। বিল গেটস সফটওয়ার কোম্পানি প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন দেখতেন এবং এক সময় সেটা বাস্তবায়ন করেন।


বিশ্বের সবচেয়ে বড় সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসের মোট সম্পদের পরিমাণ $১১৭ বিলিয়ন ডলার নিয়ে আছেন শীর্ষ ধনীর তালিকায়। টেকনোলজি বিপ্লবের প্রথম দিকে তিনি পৃথিবীর  শীর্ষ ধনীর পদটি দখল করে ছিলেন অনেক দিন।


এখনও সবচেয়ে ধনী মানুষের নাম আসলে সবার মুখে বিল গেটস এর নাম চলে আসে। তিনি ২০১৪ সাল পর্যন্ত মাইক্রোসফটের ম্যানাজিং ডিরেক্টর পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন। বর্তমানে একজন বোর্ড মেম্বার হিসেবে আছেন এবং এসবের পাশাপাশি নানা রকম সামাজিক কর্মকান্ডে জড়িত আছেন।


এই হচ্ছে বর্তমানে বিশ্বের সেরা ৫ ধনকুবের সন্ধান তালিকা ২০২২ অনুযায়ী। তাদের জীবনী ও তাদের সম্পর্কে সামান্য পরিচিতি। এছাড়াও তাদের বর্তমান সম্পদের পরিমাণ সহ অন্যান্য বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

আপনার প্রতিক্রিয়া কি?

like

dislike

love

funny

angry

sad

wow