বিটিভি’র রম্য বিতর্ক: ‘পাত্রী হিসেবে আমিই সেরা’, কেমন ছিলো?

সময়ের সাথে সাথে বিটিভি (BTV) তার জনপ্রিয়তা হারিয়েছে। হারিয়েছে হাজারো দর্শক। তবে আজও কিছু অনুষ্ঠান দেখলে আমাদের পেছনের কথা মনে পড়তে বাধ্য।

Mar 16, 2024 - 11:00
Mar 16, 2024 - 13:29
 0  21
বিটিভি’র রম্য বিতর্ক: ‘পাত্রী হিসেবে আমিই সেরা’, কেমন ছিলো?
বিটিভি’র রম্য বিতর্ক: ‘পাত্রী হিসেবে আমিই সেরা’, কেমন ছিলো?

প্রথম প্রকাশ: ১৪ জুলাই, ২০২২

ঈদ মানে অ্যান্টেনা ঘুরিয়ে সাদাকালো বিটিভি চ্যানেল। ঝিরঝিরে পর্দায় কোন নাটক বা অনুষ্ঠানে মন লাগিয়ে পরিবারসহ তা দেখা। এক বাটিতে সেমাই আর অন্য বাটিতে রুটি। এরপর মশগুল হয়ে দুই থেকে তিনঘন্টা এমনিই চলে যেত। “সুস্থ বিনোদন চাই! সুস্থ বিনোদন চাই!” বলে ফেসবুকীয় কোন আন্দোলন ছিলো না।


কারণ অনুষ্ঠানগুলো ছিলো বেশ গোছানো ও পরিপাটি। তবে আজ এই রঙের দুনিয়ায় বিটিভিও অনেক রঙিন কিন্তু সেই দর্শক নেই। হাজারো চ্যানালের মাঝে “ইত্যাদি” নামক জনপ্রিয় অনুষ্ঠান গায়েব হয়ে গেলেও ইউটিউব চ্যানেলে আমরা এখন খুব সহজে তা দেখে নিতে পারি। আমাদের যখন মন চায় তখন।


এবার ঈদে বিটিভি’র একটি অনুষ্ঠান সবাইকে বেশ তাক লাগিয়ে দিয়েছে। কিছুটা বুঝিয়েছে যে, “বিটিভি এখনো দর্শকমহলে তার আবেদন ফুরোয় নি” । এটি একটি রম্য ও বিতর্ক অনুষ্ঠান। এখানে দেখা যাচ্ছে, চারজন পাত্রী আছেন বিপরীতে মাত্র একজন পাত্র। তাই বিপদে পড়ে গেছেন ঘটক এবং তার পি.এস। তাই কোন পাত্রী এই পাত্রের জন্য যোগ্য হবেন এই নিয়ে চলে বিতর্ক।


এই রম্য বিতর্কের নাম, ‘পাত্রী হিসেবে আমিই সেরা’। হ্যাঁ, আপনি এই অনুষ্ঠানটি ইউটিউবেও পেয়ে যাবেন। কিন্তু বিতর্কের কিছু বিষয় রম্য বা হাস্যরসাত্মক হলেও বাস্তবতার বাইরে খুব বেশি যায় নি বলে বিশ্বাস।


ঘটক এখানে নিজেই বিয়ে করতে পারেন নি। এমনকি ঘটকের পি.এস হচ্ছেন তার নিজেরই কাজিন তবে বেশ রাগী। ঘটকের দাবী এই অনলাইনের দুনিয়ায় পাত্র/পাত্রী খোঁজা সহজ হলেও এখনো অতটা সহজ হয়নি। তাই ঘটকালি পেশার প্রয়োজন ফুরিয়েও যায় নি। পাত্র সুদর্শন (ঘটকের দাবী মতে) এবং পাত্রী হিসেবে আছেন যথাক্রমে চারজন,


১. জান্নাতুল মাওয়া অনন্যা (উচ্চ-শিক্ষিত নারী)

২. আফসানা রহমান অন্তরা (সুন্দরী নারী)

৩. সুমাইয়া আনোয়ার পুর্ণা (সংসারী নারী)

৪. ইভা (বড়লোকের মেয়ে)


ঘটকের পি.এস এই বিতর্কের নিয়ম বাতলে দেন। তারপর শুরু হয় এই রম্য বিতর্ক। প্রথমে কথা বলেন শিক্ষিত নারী


এরপর সবাই যার যার জায়গা থেকে নিজেকে সবচেয়ে সেরা বলে উপস্থাপন করতে শুরু করেন। একসময় আমার নিজেরও বেশ বেগ পেতে হয়েছে যোগ্য পাত্রী কে? সে বিচার করতে। কারণ, সবার কথাই বেশ ধারালো এবং অত্যন্ত পরিষ্কার।


যাইহোক, আরো বাতলে দিলে এই অনুষ্ঠান দেখার প্রতি আপনার আগ্রহ ফুরিয়ে যেতে পারে। তাই সময় থাকলে একবার দেখা নেওয়া যেতেই পারে, ‘পাত্রী হিসেবে আমিই সেরা (রম্য বিতর্ক)’ অনুষ্ঠানটি।


ছবি: পাত্রী হিসেবে আমিই সেরা - ঈদের দিন বিকাল ৪:৩০ মিনিটে


দেখুন, পাত্রী হিসেবে আমিই সেরা

আপনার প্রতিক্রিয়া কি?

like

dislike

love

funny

angry

sad

wow