চাঁদ দ্বিখণ্ডিত: রাসূল (সাঃ) এর এক অসাধারণ মোজেজা

মক্কার মুশরিকরা রাসূল (সাঃ) এর নবুওতের সত্যতা অস্বীকার করত। তারা তাঁকে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিত। একবার তারা রাসূল (সাঃ) কে আকাশের চাঁদ দ্বিখণ্ডিত করার চ্যালেঞ্জ দেয়। রাসূল (সাঃ) আল্লাহর অনুমতিক্রমে চাঁদের দিকে ইশারা করলে অলৌকিকভাবে চাঁদ দ্বিখণ্ডিত হয়ে যায়। এই অসাধারণ ঘটনা দেখে মুশরিকরা অবাক হয়ে গেলেও তারা ঈমান আনতে অস্বীকার করে। এই ঘটনাটি রাসূল (সাঃ) এর নবুওতের সত্যতার একটি অকাট্য প্রমাণ।

Apr 21, 2024 - 17:00
Apr 21, 2024 - 01:32
 0  4
চাঁদ দ্বিখণ্ডিত: রাসূল (সাঃ) এর এক অসাধারণ মোজেজা
চাঁদ দ্বিখণ্ডিত: রাসূল (সাঃ) এর এক অসাধারণ মোজেজা | প্রতীকী ছবি

চন্দ্র দ্বিখন্ডিত হওয়া এটা আল্লাহর রাসূল (সাঃ) এর একটা মোজেজা। রাসূল (সাঃ)  এর মক্কী জীবনে এটা ঘটেছে, অনেক তাফসীর কারকদের মতে নবুয়তের সপ্তম বছরে এই ঘটনাটি সংঘটিত হয়েছিল।


আবু জাহেল সহ অন্যান্য নেতারা আল্লাহর রাসূল 
(
সাঃ)  কে বললেন, “তুমি তো আমাদেরকে অনেক কিছু বল, এই যে আকাশের চাঁদ। তুমি এই চাঁদকে দ্বিখণ্ডিত করতে পারবে কিনা? তখন রাসূল (সাঃ)  বললেন যদি আমি চাঁদ দ্বিখন্ডিত করি তাহলে কি আপনারা ঈমান আনবেন? তারা সবাই বলল হ্যাঁ ঈমান আনব।”


এরপর আল্লাহর অনুমতিক্রমে রাসূল 
(
সাঃ)  চাঁদের দিকে ইশারা করলেন, চাঁদটা দ্বিখণ্ডিত হয়ে গেল। সেই রাতটা ছিল সম্পন্ন পূর্ণিমার রাত। এমনভাবে চাঁদ দ্বিখণ্ডিত হয়ে গেল যে, চাঁদের একটা অংশ থাকল আবু কুবাইস পাহাড়ের উপর।


আর আরেকটা অংশ কাইকিয়ান পাহাড়ের উপর। এই দুই পাহাড়ে চাঁদের দুইটা অংশ বিক্ষিপ্ত ভাবে থেকে গেল
, এবং চাঁদের আলোতে হেরা গুহা পর্যন্ত আলোকিত হয়ে গেছিল।
 এটা দেখে মুশরিকরা বলল মোহাম্মদ (সাঃ) আমাদের চোখের জাদু করেছে।



আল্লাহ তায়ালা বলেন

اِقۡتَرَبَتِ السَّاعَۃُ وَ انۡشَقَّ الۡقَمَرُ ﴿۱﴾

অর্থ: কিয়ামাত আসন্ন, চাঁদ বিদীর্ণ হয়েছে

English: The Hour has come near, and the moon has split [in two].


এরপর তারা পরামর্শ করল যে মোহাম্মদ 
(
সাঃ)  আমাদের সামনে আছে তাই আমাদের জাদু করতে পেরেছে, কিন্তু আমাদের যে কাফেলা গুলো এখনো মক্কায় আসে নাই রাস্তায় আছে, কেউ ইয়ামানের রাস্তায় আছে, কেউ সিরিয়ার রাস্তায় আছে, তাদেরকে জিজ্ঞেস করে দেখব। ওরা যদি বলে আমরা চাঁদ দ্বিখন্ডিত হওয়া দেখেছি, তাহলে এটা জাদু হতে পারেনা


তার কারণ তারা অনেকে মোহাম্মদ 
(
সাঃ) কে কোনদিন দেখেননি। এরপর ওদের যেগুলো কাফেলা ইয়ামানের রাস্তায় ছিল সিরিয়ার রাস্তায় ছিল, এগুলো কাফেলা মক্কায় আসার পর জিজ্ঞাসা করা হলো, তখন তারা সাক্ষী দিল হা আমরা চন্দ্র দ্বিখণ্ডিত দেখেছি। তারপরও তারা ফিরে গেল ঈমান আনলো না


আল তারাবি রচিত রাসূল 
(সাঃ) এর জীবনী থেকে আমর আমরা একটা ঘটনা পাই, তা হল ভারতের কেরালা রাজ্যের তখনকার রাজা ছিলেন তাজউদ্দীন। রাতের খাওয়ার শেষে রাজা তাজউদ্দিন তার স্ত্রীকে কে নিয়ে প্রাসাদের ছাদে পূর্ণিমার চাঁদ উপভোগ করছিলেন। হঠাৎ তিনি দেখতে পেলেন চাঁদ দ্বিখণ্ডিত হয়ে গেল। এটা দেখে তিনি অবাক হয়ে গেলেন এরকম দৃশ্য এর আগে সে কোনদিন দেখে নাই।


এরপর তিনি খোঁজ খবর নেওয়া শুরু করলেন। বিভিন্ন দেশের বণিকদের সাথে কথা বললেন কেউ কিছু বলতে পারেনা। এরপর এক আরব বণিক কে জিজ্ঞেস করলেন
, “চাঁদ দ্বিখণ্ডিত হওয়া সম্পর্কে তুমি কিছু জানো কিনা? তখন আরব বণিক উত্তর দিল হা আমি জানি এটা আমাদের দেশের ঘটনা। তখন রাজা তাজউদ্দীন বললেন পুরো ঘটনাটি খুলে বল। এরপর বণিক সম্পন্ন ঘটনা খুলে বললেন, আমাদের দেশে একজন নবীর আবির্ভাব হয়েছে এটা তার মোজেজা ছিল।”


সম্পূর্ণ ঘটনা শোনার পর
, রাসূল (সাঃ)  কে দেখার জন্য উদগ্রীব পরেন রাজা তাজউদ্দীন। এরপর রাজা তাজউদ্দীন মক্কায় যান রাসুল (সাঃ) এর দেখা করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন

আপনার প্রতিক্রিয়া কি?

like

dislike

love

funny

angry

sad

wow